মিয়ানমার পরিস্থিতি নিয়ে জরুরি বৈঠকে বসছে জাতিসংঘ

সেনা অভ্যুত্থানের পর মিয়ানমার পরিস্থিতি নিয়ে মঙ্গলবার জরুরি বৈঠকে বসতে যাচ্ছে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ। বৈঠকটি ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে অনুষ্ঠিত হবে। এটি রুদ্ধদ্বার বৈঠক হবে। খবর: এএফপি। এর আগে সোমবার নিরাপত্তা পরিষদের সদস্যরা বৈঠকের বিষয়টি অনুমোদন করেন। বৈঠকে মিয়ানমারে নিযুক্ত জাতিসংঘের বিশেষ দূত ও সুইজারল্যান্ডের কূটনীতিক ক্রিস্টিন শ্রেনার বার্গেনার পরিস্থিতি নিয়ে বিবৃতি দেবেন বলে আশা করা হচ্ছে। সোমবার মিয়ানমারের সেনাবাহিনী এক অভ্যুত্থানের মাধ্যমে ক্ষমতা দখল করেছে। দেশটির স্টেট কাউন্সিলর অং সান সু চি ও প্রেসিডেন্ট উ উইন মিন্টসহ ক্ষমতাসীন দলের নেতাদের আটক করা হয়েছে।

ফেব্রুয়ারি মাস থেকে নিরাপত্তা পরিষদের সভাপতির দায়িত্বে রয়েছে যুক্তরাজ্য। এ সপ্তাহেই মিয়ানমারের সঙ্গে বৈঠকের পরিকল্পনা ছিল দেশটির। তবে পরিস্থিতি বিবেচনা করে বৈঠকটি বাতিল করা হয়েছে। এদিকে ক্ষমতা হস্তান্তর না করলে এবং সু চিকে মুক্তি না দিলে মিয়ানমার সেনাবাহিনীকে অবরোধের হুমকি দিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের সদ্য দায়িত্ব নেওয়া প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। সোমবার সকালে জরুরি অবস্থা জারি করে সশস্ত্র বাহিনীর প্রধানের হাতে ক্ষমতা হস্তান্তরের কথা জানিয়েছে সেনাবাহিনী। সেনাবাহিনীর মালিকানাধীন টেলিভিশনে এক ভিডিও ভাষণে সিনিয়র জেনারেল মিং অং হ্লাইং জানান, গত বছরের সাধারণ নির্বাচনে কারচুপির জবাবে সরকারের জ্যেষ্ঠ নেতাদের তারা আটক করা হয়েছে।

১ মন্তব্য

মন্তব্য করুনঃ

আপনার মন্তব্য লিখুন!
এখানে আপনার নাম লিখুন