হোমনায় ঘরে ঢুকে প্রতিবন্ধি স্বামীকে প্রাণে মেরে ফেলার ভয় দেখিয়ে প্রতিবন্ধী গৃহবধূকে গণধর্ষণ, আটক ৪

হোমনা উপজেলার চারকুরিয়া গ্রামে গভীর রাতে ঘরে ঢুকে প্রতিবন্ধি স্বামীকে প্রাণে মেরে ফেলার ভয় দেখিয়ে এবং তার প্রতিবন্ধী স্ত্রীকে (২২) নতুন জামা কিনে দেয়ার আশ্বাস দিয়ে গণ ধর্ষণের অভিযোগে চার যুবকে আটক করেছে পুলিশ। আটকরা হলো- একই গ্রামের মো. সিদ্দিকুর রহমানের ছেলে মো. হাসান (২৭), মোহন মিয়ার ছেলে মো. রাসেল (২০), জয়নাল আবেদীনের ছেলে মো. ইউসুফ প্রকাশ বাদশা (২৫) ও মৃত মজিবুর রহমানের ছেলে মো. সোহাগ মিয়া (১৬)। শনিবার রাতে আটকের পর আজ রবিবার আসামীদের কুমিল্লা কারাগারে পাঠিয়েছে পুলিশ।

হোমনা-মেঘনা সার্কেলের সিনিয়র এএসপি মো. ফজলুল করিম জানান, গত ২৯ ডিসেম্বর ২০২০খ্রি রাতে আটক হাসান তার সঙ্গীদের নিয়ে রাতে বুদ্ধি প্রতিবন্ধি দম্পতির ঘরে ঢুকে। এ সময় স্বামীকে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দেয় এবং প্রতিবন্ধি স্ত্রীকে পাঁচশ’ টাকা ও নতুন জামা কিনে দেওয়ার কথা বলে তারা পালাক্রমে রাতভর ধর্ষণ করে। স্বামী-স্ত্রী দুজনেই বুদ্ধি প্রতিবন্ধী হওয়ায় হাসান এর আগেও ওই গৃহবধূকে কয়েকবার ধর্ষণ করেছে বলে পুলিশের কাছে স্বীকার করেছে। এত দিন বিষয়টি ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা হয়েছিল। বিষয়টি জানতে পেরে শনিবার রাতে আসামীদের আটক ও ভিকটিমকে উদ্ধার করি। এ নিয়ে গ্রাম্য শালিস বৈঠকে টাকার বিনিময়ে মিমাংসার চেষ্টা করা হয়েছিল বলেও শোনা গেছে।

হোমনা থানার ওসি আবুল কায়েস আকন্দ বলেন, এ ব্যাপারে ভিকটিমের স্বামী মো. সফিক বাদী হয়ে থানায় মামলা করেছে।আজ রবিবার আসামীদের আদালতের মাধ্যমে কারাগারে এবং ভিকটিমকে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য কুমেক হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

বার্তা প্রেরক
মোঃ কামাল হোসেন
হোমনা (কুমিল্লা) প্রতিনিধি

মন্তব্য করুনঃ

আপনার মন্তব্য লিখুন!
এখানে আপনার নাম লিখুন