টানা বৃষ্টিতে তেঁতুলিয়ার নিম্নাঞ্চল প্লাবিত

গত সপ্তাহধরে লাগাতার বৃষ্টিতে তেঁতুলিয়ার নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। জানা যায় এক টানা বৃষ্টিপাতের কারণে শীতের আগাম শাক-সবজ্বি নষ্ট হয়েছে। এছাড়া অর্থকারী ফসল সমতলের চা বাগানগুলোতে পানি জমে থাকায় অনেক কৃষকের চা গাছ মরে যাবার উপক্রম হয়েছে। দুযোর্গপুর্ণ আবহাওয়ার কারণে নিত্যান্ত প্রয়োজন ছাড়া সাধারণ মানুষ ঘর থেকে বের হয়নি। হাটবাজার ও রাস্তা-ঘাট ছিল জনশূন্য। টানা বৃষ্টিতে কাজ করতে না পারায় নি¤œ আয়ের মানুষের জীবনযাত্রা থমকে গেছে। মমিনপাড়া গ্রামের ব্যাংক কর্মকর্তা আব্দুল জব্বার ও শো রুম ব্যবসায়ী সোহাগ জানান সড়কের দুপাশ সরকারি খালগুলো ভরাট করে দখল করার পাশাপাশি পানি নিঃস্কাশনের কোন ড্রেনেজ ব্যবস্থা না থাকায় রাস্তা-ঘাট ডুবে গেছে। গ্রামে অনেকের শয়নঘর ও রান্না ঘর পানি ঢুকেছে। ফলে নিত্যদিনের কাজকর্মে চলাফেরায় তাদের দূভোর্গ বেড়েছে।

এছাড়া তেঁতুলিয়া সদরের সাহেবজোত দক্ষিণ, পুরাতন বাজারের মমিনপাড়া, সরকারপাড়া, কেজি স্কুলের আশপাশ এলাকা,ডাকবাংলোর দক্ষিণপাশে সরকারি খালে বসবাসকারী বেশ কিছু পরিবারের ঘর-বাড়ি পানিতে তলিয়ে গেছে। এছাড়া ৬নং ভজনপুর ইউনিয়ের ভজনপুর, গণাগছ, ভেলুপাড়া সহ শালবাহান ও তিরনইহাট ইউনিয়নের নিম্নাঞ্চলে জলাবদ্ধতা দেখা দিয়েছে। ভুক্তভোগীদের অভিযোগ পানি নিঃস্কাশন ব্যবস্থা না হলে তাদের দূভোর্গ আরও বাড়বে। তারা এবিষয়ে উপজেলা প্রশাসন সহ স্থানীয় চেয়ারম্যানের আশুদৃষ্টি আকর্ষণ করেন।

তেঁতুলিয়া ১ম শ্রেণির আবহাওয়া পর্যবেক্ষনাগার অফিস সূত্রে জানা যায় গত ২৪ ঘন্টায় ১শত ১৫ মিলি মিটার রেকর্ড করা হয়েছে। আগামীকাল দুযোর্গপূর্ণ আবহাওয়া কেটে যাবে এমন পুর্বাভাস ঢাকা অফিস জানিয়েছে।
উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কাজী মাহমুদুর রহমান ডাবলু জানান- সাতটি ইউনিয়নের প্রায় ৮শত পানিবন্ধি পরিবারের মাঝে শুকনা খাবার বিতরণের প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে।

বার্তা প্রেরক
জাবেদুর রহমান জাবেদ
তেঁতুলিয়া প্রতিনিধি

মন্তব্য করুনঃ

আপনার মন্তব্য লিখুন!
এখানে আপনার নাম লিখুন